এতদিন পর সত্যটা বলে দিলেন মিয়া খলিফা

মানুষের জীবনে কতই না ভুল থাকে। এরমাঝেও কিছু ভুল থাকে যেগুলো আর শোধরানো যায় না। অনুশোচনা করেই কাটাতে হয়।

তেমন অনুশোচনার কথাই জানালেন প’র্ন’স্টা’র মিয়া খ’লিফা। ব্যক্তিগত হীনমন্যতা থেকেই এই সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য এই পেশায় এসেছিলেন বলে জানান মিয়া।

বিবিসির ‘হার্ডটক’ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘ছোটবেলা আমার ওজনের জন্য ভুগেছি এবং নিজেকে কখনও পুরুষের দৃষ্টি আকর্ষণের যোগ্য বলে মনে হতো না।

আমার না’রীত্বকে যেন কেউ অনুভব করতো না।’

প’র্নোগ্রাফির জগৎ থেকে অনেক আগেই বের হয়ে এসেছেন। তবে নিজের জীবনের ভয়াবহ তিন মাসের অভিজ্ঞতা ভুলতে পারছেন না তিনি। আবার, তার সেই পরিচয়ও মানুষ ভুলছে না।

এখনো লোকে তাকে সে চোখেই দেখে। মিয়ার মতে, এ পরিচয়টা মুছতে তার সময় লাগবে সেটা তিনি বুঝতে পারছেন। কিংবা হয়তো কোনো দিনই মুছবে না।

অল্প বয়সে অনেক টাকা রোজগার, অজানা রঙিন জগতে হারিয়ে যাওয়ার হাতছানি থেকেই এই পেশায় গিয়েছিলেন মিয়া। প্রথম যখন পর্ন ছবিতে কাজ করার প্রস্তাব পান তিনি বুঝতে পারেননি এটিকে কীভাবে প্রত্যাখ্যান করবেন।

মোহভঙ্গ হয় মাত্র তিন মাসেই। মাত্র ১২ হাজার ডলার আয় করেছেন, বিনিময়ে তছনছ হয়ে গেছে গোটা জীবন। বাবা-মা ও পরিবারের লোকজন তাকে ত্যাগ করেছেন।

প’র্ন ছেড়ে দেওয়ার পরেও আর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। মধ্যপ্রাচ্যসহ বেশকিছু মুসলিম অধ্যুষিত দেশে নিষি’দ্ধ করা হয় তাকে। আইএসআইএসের কাছ থেকে খু’নের হু’ম’কি’ও পান।

মিয়ার উপলদ্ধি, প’র্নোগ্রা’ফির জগৎ থেকে বের হওয়াটা সহজ নয়। ইন্ডাস্ট্রিতে ঢোকার পর নানা ফাঁদে আট’কে পড়ে অল্প বয়সী মেয়েরা।

নারী পাচা’রকা’রীদের মাধ্যমেও কীভাবে ছোট ছোট মেয়েরা এ অন্ধকা’র জগতে আসতে বাধ্য হয় সেটিও বলেছেন মিয়া। কার মতে, বহু মেয়ে অপ’রিণত মনে, ভুল সিদ্ধান্ত ও কিছু মানুষের পাল্লায় পড়ে নিজের জীবন নষ্ট করে দিয়েছে।

আমাকে এ ধরনের অনেক মেয়েই মেইল করে সেকথা জানিয়েছে। তাদের জীবনের গল্পগুলো ভয়’ঙ্ক’র।

১৯৯৩ সালে লিবিয়ায় জন্ম নেন মিয়া খালিফা। ২০০১ সাল থেকে আমেরিকার বাসিন্দা। ২০১৪’র শেষ দিকে প’র্ন ইন্ডাস্ট্রিতে খুব অল্প’সময়ের জন্য কাজ করেছেন তিনি। দ্রুতই অ’ন্ধ’কার জগতের নায়িকা হিসেবে পরিচিতি পান তিনি। যে পরিচয় এখন তার কাছে অভি’শাপ মনে হচ্ছে।

(Visited 353 times, 1 visits today)

About juwel Bd

Check Also

আমি তো প্রেম ছাড়া বাঁচতেই পারি না: পরীমনি

ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে পরীমনির দুই ছবি ‘বিশ্বসুন্দরী’ ও ‘স্ফুলিঙ্গ’। আইন–আদালতের ঝামেলা মাথায় নিয়েও এরই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.